মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন

দীপিকার এ ছবিই ভাইরাল নেটদুনিয়ায় ।

দীপিকার এ ছবিই ভাইরাল নেটদুনিয়ায় ।

সোনালি গাউনের অনেকটাই এলোমেলো৷ উন্মুক্ত শরীর৷ উর্ধ্বাঙ্গ প্রায় অনাবৃত৷ দীপিকা পাড়ুকোনের এমন একটি ছবিই ভাইরাল নেট দুনিয়ায়৷ কিন্তু সত্যিটা কী? সত্যিই কি ওয়ার্ডরোব ম্যালফাংশনের শিকার হয়েছিলেন অভিনেত্রী?

যা রটে তা সবসময় সত্যি হয় না৷ দীপিকার ভাইরাল ছবি তাইই প্রমাণ করছে৷ আসলে যে ছবিটি ঘুরছে, সেটি একটি বিকৃত ছবি৷ xXx: Return of Xander Cage ছবির বলিউড প্রিমিয়ারে এসেছিলেন ভিন ডিজেল৷ সেখানেই দীপিকা পরেছিলেন একটি সোনালি গাউন৷ বোল্ড দীপিকা হলিউডি ছবির প্রিমিয়ারে ঝলমল করে উঠেছিলেন যথেষ্ট সাহসী পোশাকেই৷ কিন্তু সে পোশাককে বিকৃত করা হয়৷ একই ছবিকে প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে পাল্টে 540709-deepika-xxx-3 দেয়া গাউনের নেকলাইন৷ ফলে মনে হচ্ছে দীপিকার শরীরের উর্ধ্বাংশের অনেকটাই অনাবৃত হয়ে পড়েছে৷ সে ছবিকেই ওয়ার্ডরোব ম্যালফাংশনের তকমা দিয়ে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে৷ অনেকেই তা সত্যি ভাবছেন৷ কিন্তু আরও একবার নেটদুনিয়ার বিকৃতির শিকার হলেন অভিনেত্রী।

এর আগে এক সর্বভারতীয় সংবাধমাধ্যমে দীপিকার এমন ছবি প্রকাশ করেছিল, যেখানে অভিনেত্রী নন ছবির বিষয় যেন হয়ে উঠেছিল তাঁর ক্লিভেজ৷ তারপরই তা নিয়ে মুখ খোলেন অভিনেত্রী৷ বিভাজিকাই যে তাঁর পরিচয় নয় সে কথা সোচ্চারে বুঝিয়ে দিয়ে তিনি বলেন৷ দীপিকার বোল্ড স্টেটমেন্টের পর বলিপাড়ার একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রী তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন৷ পরবর্তীকালে নিজের কাজে তিনি প্রমাণও করে দিয়েছেন অভিনেত্রী হিসেবে তাঁর যোগ্যতা কতখানি৷

সেখানে ক্লিভেজের পাবলিসিটি যে নেহাতই ক্লিশে, তা প্রতি কাজে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন৷ তাঁর পদাঙ্ক অনুসরণ করেই যেন খুশি কাপুর থেকে আলিয়া বেদিরা বডি শেমিংয়ের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন৷ তবে ঘুরেফিরে দেখা গেল সেই একই ছবি৷ ফের বডি শেমিংয়ের শিকার হলেন খোদ দীপিকা পাড়ুকোনই৷ এখনও এ বিষয়ে নায়িকা নিজে কিছু বলেননি৷ কাজে ও কথায় যেভাবে উইমেন এমপাওয়ারমেন্টের প্রতিনিধি হয়ে উঠেছেন দীপিকা৷ আর তাই এ ব্যাপারে তাঁর থেকে কড়া জবাবই আশা করছেন তাঁর গুণমুগ্ধরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




Design & Developed BY ThemesBazar.Com