,
সংবাদ শিরোনাম :

পদত্যাগ করেছেন যুক্তরাজ্যের ব্রেক্সিট বিষয়ক দুই মন্ত্রী

পদত্যাগ করেছেন যুক্তরাজ্যের ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী ডেভিড ডেভিস ও উপমন্ত্রী স্টিভেন বেকার । প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে তার  ব্রেক্সিট পরিকল্পনার জন্য মন্ত্রীপরিষদের পর্যাপ্ত সমর্থন নিশ্চিত করার কয়েকদিন পরই এ সিদ্ধান্ত নিলেন ডেভিস। খবর বিবিসি’র।
খবরে বলা হয়, ২০১৬ সালে ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান ডেভিস। মন্ত্রী হিসেবে তার দায়িত্ব ছিল যুক্তরাজ্য সরকারের হয়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে এই ইস্যুতে আলোচনা করা।
এদিকে, ডেভিস পদত্যাগ করার কিছুক্ষণের মধ্যেই তার সহকারী ও ব্রেক্সিট বিষয়ক উপমন্ত্রী স্টিভেন বেকারও পদত্যাগ করেন। আজ সোমবার পার্লামেন্ট সদস্য ও সহকর্মীদের সঙ্গে ব্রেক্সিট ইস্যুতে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে মে’র। এর আগ দিয়েই তার দুই ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী পদত্যাগ করলেন।
ডেভিস তার পদত্যাগপত্রে মে’কে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, যুক্তরাজ্যের বর্তমান নীতিমালা ও কৌশলের ধরণ থেকে এমন আভাস পাওয়া যাচ্ছে যে যুক্তরাজ্য ইইউ’র কাস্টমস জোট ও একক বাজার থেকে বের হয়ে আসবে এমন সম্ভাবনা কম।
তিনি বলেন, বর্তমানে যুক্তরাজ্য সরকার যে পদ্ধতিতে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে, তাতে ইইউ থেকে কেবল দাবির সংখ্যা বাড়তেই থাকবে।  ডেভিস বলেন, বর্তমান নীতিমালার সাধারণ গতিপথ, আলোচনায় আমাদের অবস্থান দুর্বল করে তুলবে ও সম্ভবত সেখান থেকে বের হবার উপায় থাকবে না।
ডেভিসের পদত্যাগপত্রের জবাবে মে বলেন, শুক্রবার মন্ত্রীপরিষদে আমরা যে নীতিমালায় সম্মত হয়েছি সে নীতিমালা নিয়ে আপনার চরিত্রাঙ্কনের সঙ্গে আমি একমত নই।
মে জানান, ডেভিসের চলে যাওয়ায় তিনি দুঃখিত। তবে ব্রেক্সিট আলোচনায় তার সকল কাজের জন্য মে তাকে উষ্ণ ধন্যবাদ জানাতে চান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[related_post themes="flat" id="3734"]

সম্পাদক ও প্রকাশক :মোঃবোরহান,হাওলাদার(জসিম)

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক,সনজিত সাহা,মোবাইল০১৯১২৩৩৮৮৩৪,ইমেইল:

Newsbhorerdhani@gmail.com

বার্তা ও বাণিজ্যিক.কার্যালয় : ২৬২/ক.বাগীচাবাড়ী(৩য়া)ফকিরাপুল.মতিঝিলওসম্পাদক/কর্তৃকতুহিনপ্রিন্টিংপ্রেস ফকিরাপুলমতিঝিল,ঢাকা১০০০।