,
সংবাদ শিরোনাম :

কালীগঞ্জে স্ত্রীকে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিয়েছে ডির্ভোজপ্রাপ্ত স্বামী

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি:কালীগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নে যৌতুক ও মারামারি মামলা তুলে না নেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিয়েছে ডির্ভোজপ্রাপ্ত স্বামী বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। টানা ৪ দিন ধরে পা ভাঙ্গা ও সারা শরীরে জখম নিয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো ব্যথার যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন স্ত্রী নাছরিন আক্তার (২৬)। গত ২৪ জুন দুপুরে জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের মৌশুন্দী গ্রামের বোরহানের বাড়ির পাশে রাস্তায় স্বামী মো. কাউছার সর্দার স্ত্রী নাছরিনকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিলে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মহিলা ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, ভাঙ্গা পা ও থেঁতলে যাওয়া হাত এবং সারা শরীরের জখম নিয়ে বেডে শুয়ে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন নাছরিন আক্তার। সাংবাদিকদের দেখে সে হাউমাউ করে কাঁদতে থাকেন। স্বামী কাউছারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে সে বলেন, গত ২৪ জুন তার ভাবী সাবিহাকে নিয়ে আওড়াখালী বাজারে যান। বাজার থেকে ফেরার পথে বোরহানের বাড়ির সামনে পৌছলে জঙ্গল থেকে স্বামী কাউছার বের হয়ে তাদের পথরোধ করে বাঁশ দিয়ে এলোপাতাড়ি তাকে পিটাতে থাকে। তার ভাবী এতে বাঁধা দিলে তাকেও মারধর করে কাউছার। স্বামীর পিটুনিতে নাছরিনের ডান পা ভেঙ্গে যায়, বাম পা ও বাম হাত থেঁতলে যায়। অচেতন অবস্থায় নাছরিন পড়ে থাকলে তার দুই ছেলে সিহাব (৯) ও আলভী (৪ ) কে নিয়ে কাউছার পালিয়ে যায়। যাওয়ার সময় মামলা না তুললে তাকেসহ তার পরিবারের সবায়কে হত্যা করবে বলে হুমকি দিয়ে যায় কাউছার। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।
নাছরিনের বড় বোন সুফিয়া বেগম বলেন, গত ২৪/১১/১৩ তারিখে রেজিষ্ট্রি কাবিনমূল্য দুই লক্ষ টাকার দেনমোহরে মৌশুন্দী গ্রামের মো. আবু সাঈদ সর্দারের ছেলে মো. কাউছার সর্দারের (৩১) সাথে তার বোনের বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে নেশাগ্রস্ত স্বামী কাউছার যৌতুকের জন্য তার বোনকে প্রতিনিয়ত শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। গত ০৮/০৫/১৭ তারিখে যৌতুকের জন্য তার বোন নাছরিনকে তার স্বামী কাউছার মারধর করে। সেই খবর তার ভাই মো. মোশারফ হোসেন জানতে পেরে তার বোনের শ^শুর বাড়ি গিয়ে বোনকে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়। পরেরদিন সকালে কাউছার ও তার সহযোগী ৪/৫ জনকে নিয়ে তার শ^শুর বাড়ি গিয়ে মোশারফের ওপর হামলা চালায়। এতে মোশারফ রক্তাক্ত জখম হলে তাকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ সংক্রান্ত বিষয়ে গত ১৫/০৫/১৭ তারিখে নাছরিন বাদী হয়ে গাজীপুর বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত নং- ৩ এ তার স্বামী কাউছার ও তার সহযোগী সোহেলের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৪/৫ জনের নামে মামলা দায়ের করেন, যার নং সিআর ১১৫/১৭। এর আগেরদিন অর্থাৎ ১৪/৫/১৭ তারিখে স্বামীর যৌতুকের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে একই আদালতে স্বামী মো. কাউছার, তার সহযোগী মৃত ওয়াজ উদ্দিনের ছেলে মো. সোহেল ও তার শাশুড়ী হাফেজা খাতুনের বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা দায়ের করেন নাছরিন, যার সিআর নং ১০৭/১৭। পাঁচ মাস পূর্বে আদালতের মাধ্যমে কাউছার তাকে ডির্ভোজ দেয় বলে নাছরিন জানান।
নাছরিনকে মামলা দুটি তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে আসে কাউছার। সেই পরিপ্রেক্ষিতে নাছরিনের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২৪ জুন কাউছার তাকে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দেয় এবং সারা শরীরের গুরুতর জখম করে।
কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রোর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. তারেক হাসান বলেন, নাছরিনের ডান পা ভেঙ্গে গেছে। ডান হাত ও বাম পা থেঁতলে যাওয়ায় নীলাফুলা জখম রয়েছে।
কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মুজিবুর রহমান বলেন, এই সংক্রান্ত বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তকারীকে গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ছবির ক্যাপশন ঃ কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো ভাঙ্গা পা নিয়ে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন নাছরিন আক্তার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[related_post themes="flat" id="3434"]

সম্পাদক ও প্রকাশক :মোঃবোরহান,হাওলাদার(জসিম)

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক,সনজিত সাহা,মোবাইল০১৯১২৩৩৮৮৩৪,ইমেইল:

Newsbhorerdhani@gmail.com

বার্তা ও বাণিজ্যিক.কার্যালয় : ২৬২/ক.বাগীচাবাড়ী(৩য়া)ফকিরাপুল.মতিঝিলওসম্পাদক/কর্তৃকতুহিনপ্রিন্টিংপ্রেস ফকিরাপুলমতিঝিল,ঢাকা১০০০।