,

সংবাদ শিরোনাম :
» « সেই ভারতীয় নারীর স্বামী আটক» « হারার ভয়ে আওয়ামী লীগ নির্বাচন বানচাল করতে পারে: মওদুদ» « নেতাকর্মী ও সমর্থকদের বাসা-বাড়িতে পুলিশ প্রতিদিনই হানা দিচ্ছে: রিজভী» « বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় এলে বাংলাদেশ জঙ্গির দেশ হবে’» « তরুণদের মাদক থেকে দূরে রাখবে যোগ ব্যায়াম: ভূমিমন্ত্রী» « জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন পরিচালনা বিভাগের প্রধান ঢাকায় আসছেন রবিবার» « কোচিং বন্ধে মনিটরিং কমিটির কার্যক্রম জোরদার হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী» « কালীগঞ্জে ডিসের লাইন মেরামত করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পর্শে যুবকের মৃত্যু» « নড়িয়ায় বোন-দুলাভাইয়ের অাক্রমনে দুই ভাই রক্তাক্ত» « টাঙ্গাইল জেনারেল হাসাপাতালের সোয়া কোটি টাকা বিদ্যুৎবিল বকেয়া ॥ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

নন্দীগ্রামে ঈদকে ঘিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার

নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি: মুসলিম উম্মাহর সর্বোচ্চ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। আর মাত্র ক’দিন পরই ঈদ। ঈদের ব্যস্ততা ঘিরে চুরি-ছিনতাই ঠেকাতে সার্বিকভাবে প্রস্তুত জেলার নন্দীগ্রামের আইন-শৃংখলা বাহিনী।

এ উপলক্ষে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ। যে কোন ধরণের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছে। এ ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ ও গ্রাম পুলিশ মতায়েন করা হয়েছে। গড়ে তোলা হয়েছে নিরাপত্তা বলয়। বাড়ানো হয়েছে পুলিশ টহল। অপরাধীদের প্রতি জিরো টলারেন্স ভূমিকায় সক্রিয় রয়েছে পুলিশ।

প্রতি বছরই শেষ মূর্হূতে ঈদকে ঘিরে কেনাকাটার ধুম পড়ে যায়। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। গত কয়েকদিন ধরে বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত ব্যস্ত নন্দীগ্রাম পৌর শহর। পথে যানবাহনের ঠাসাঠাসি। ভিড় বেড়েছে বিভিন্ন মার্কেট ও বিপণী বিতানগুলোতে।

এই সুযোগটাকে কাজে লাগাতে মরিয়া হয়ে উঠে চোর ও ছিনতাইকারীরা। এদের ঠেকাতে মাঠে রয়েছেন আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা।

এ বছর অবশ্য বিচ্ছিন্ন দুই-একটা ঘটনা ছাড়া বড় ধরণের কিছু এখনও ঘটেনি। আইনশৃংখলা বাহিনীর তৎপরতা ফলে শান্তিতেই ঈদ বাজার সারতে পারছেন নন্দীগ্রাম বাসী। চাঁদরাত পর্যন্ত কেনাকাটার ব্যস্ততা থাকবে ক্রেতারা। আর এই পুরো সময়টা আইনশৃংখলা বাহিনীর তৎপরতাও বজায় থাকবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

নন্দীগ্রাম সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘ঈদ উপলক্ষ্যে আমরা নাগরিক নিরাপত্তা নিশ্চিতের বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি। ইতিমধ্যে বাড়ানো হয়েছে পুলিশ টহল। মোটর সাইকেল টহলদলও কাজ করছে। ঈদে ঘরে ফেরা মানুষের নিরাপত্তার জন্য হাইওয়ে টহল জোরদার করা হয়েছে। এছড়াও বিভিন্ন ইউনিয়নের অঞ্চলিক সড়ক গুলোতে পুলিশের পাশাপাশি টহল দিচ্ছে গ্রাম পুলিশ। ঘরমুখি মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে।

এবার উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ১০৩টি ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ধরা হয়েছে নুন্দহ ও আলপুনিয়া ঈদগাহ মাঠ। তবে ঝুঁকিপূর্ণ ঈদগাহ গুলো আইন শৃংখলাবাহিনীর নজর দারীতে থাকবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন জানান, পুলিশ সদস্যরা থানার গুরুত্বপূর্ণ এলাকা গুলোতে দায়িত্ব পালন শুরু করেছেন। ঈদে কেনাকাটা ও ঘরে ফেরা মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা আন্তরিক। বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছি। ইতিমধ্যে স্থানীয় বাসষ্ট্যান্ড, বিভিন্ন ব্যাংক, মার্কেট গুলোতে পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[related_post themes="flat" id="2531"]

সম্পাদক ও প্রকাশক :মোঃবোরহান,হাওলাদার(জসিম)

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক,সনজিত সাহা

মোবাইল০১৯১২৩৩৮৮৩৪,০১৯১১০৬৯৫১৩

ইমেইল:Somoyerkanth@gmail

বার্তা ও বাণিজ্যিক.কার্যালয় : ২৬২/ক.বাগীচাবাড়ী(৩য়া)ফকিরাপুল.মতিঝিলওসম্পাদক/কর্তৃকতুহিনপ্রিন্টিংপ্রেস ফকিরাপুলমতিঝিল,ঢাকা১০০০।