,

সংবাদ শিরোনাম :
» « সেই ভারতীয় নারীর স্বামী আটক» « হারার ভয়ে আওয়ামী লীগ নির্বাচন বানচাল করতে পারে: মওদুদ» « নেতাকর্মী ও সমর্থকদের বাসা-বাড়িতে পুলিশ প্রতিদিনই হানা দিচ্ছে: রিজভী» « বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় এলে বাংলাদেশ জঙ্গির দেশ হবে’» « তরুণদের মাদক থেকে দূরে রাখবে যোগ ব্যায়াম: ভূমিমন্ত্রী» « জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন পরিচালনা বিভাগের প্রধান ঢাকায় আসছেন রবিবার» « কোচিং বন্ধে মনিটরিং কমিটির কার্যক্রম জোরদার হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী» « কালীগঞ্জে ডিসের লাইন মেরামত করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পর্শে যুবকের মৃত্যু» « নড়িয়ায় বোন-দুলাভাইয়ের অাক্রমনে দুই ভাই রক্তাক্ত» « টাঙ্গাইল জেনারেল হাসাপাতালের সোয়া কোটি টাকা বিদ্যুৎবিল বকেয়া ॥ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

দাকোপে ৯ম শ্রেণির ছাত্রীর অপমৃত্যুর প্রতিবাদে বিচার চেয়ে সাংবাদ সম্মেলন

স্বপন কুমার রায় দাকোপ খুলনাঃখুলনার দাকোপ উপজেলায় গতকাল মঙ্গলবার (১২ জুন) সকাল ১০টায় ৯ম শ্রেণির ছাত্রী পূর্ণিমার অপমৃত্যুর প্রতিবাদে বিচার চেয়ে সাংবাদ সম্মেলন করেন দাকোপ প্রেসক্লাবে।
উপজেলার পানখালী ইউনিয়নের খাটাইল গ্রাম উন্নয়ন কমিটি’র উদ্দ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তার পরিবার মেয়ের আকাল মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়ে বিচারের দাবী জানায়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গ্রাম উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আ. রাজ্জাক শেখ। বক্তব্যে বলেন, জেলার বটিয়াঘাটা উপজেলার বুনারাবাদ গ্রামের নিত্য ঢালীর ছেলে জীবন ঢালী দাকোপ উপজেলার খাটাইল গ্রামের মৃতঃ শিবপদ মহলদারের মেয়ে পূর্ণিমা মহলদারের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্কের সুবাদে পূর্ণিমাকে ফুসলে নিয়ে ঢাকায় নিয়ে যায় জীবন ঢালী। এসময় পূর্ণিমার সাথে দৈহিক সম্পর্কে সে আন্ত:সত্ব হয়ে পড়ে। সংবাদ সম্মেলনে আরও জানা যায়, ডাক্তার কবিরাজ দিয়ে পূর্ণিমার গর্ভপাত ঘটায় জীবনের পরিবার। তারপর তাকে (পূর্ণিমা) ঢাকায় জীবনের কাছে পাঠালে কোন রকম সুচিকিৎসা ছাড়া ফেলে রাখে প্রেমিক জীবন ঢালী। চিকিৎসাবিহীন অবস্থায় দিন যত যাই ততই সে মৃত্যুও দিকে ঢলে পড়ে। এক পর্যায় গত ৪ জুন সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টায় অপরিচিত ব্যক্তির মোবাইল নম্বর থেকে কল আসে পূর্ণিমার দাদার কাছে। সে মুঠোফোনে বলে তোমার বোন (পূর্ণিমা) মারা গেছে। সংবাদ সম্মেলনে আরও বলেন, পূর্ণিমার দাদা শ্যামল মহলদার জীবনের মায়ের কাছে ফোন করলে তার মা উত্তর দেয় তোমার বোনের লাশ নিয়ে আসছি, পানখালী ফেরিঘাটে এসে নিয়ে যাও। লাশ নিয়ে পূর্ণিমার পরিবারের স্বন্দেহ হলে থানা পুলিশের নিকট লাশ দিয়ে দেন। লাশ পুলিশের মাধ্যমে ময়না তদন্ত করে পূর্ণিমার পরিবার লাশ নিজ বাড়িতে দাহ্ কার্য সম্পন্ন করে। পুর্ণিমার পরিবারের সন্দেহ অনুযায়ী মেয়ের আকাল মৃত্যুর প্রতিবাদ ও বিচারের দাবী করেন সংশ্লিষ্ট মহলের উপরে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, গ্রাম উন্নয়ন কমিটির সদস্য কুবেশ চন্দ্র রায়, বিনয় কৃষ্ণ গাইন, নাইস সরকার, শ্যামলী মহলদার, রাধীকা মন্ডল, পূর্ণিমার মা অর্পণা মহলদার ও দাদা শ্যামল মহলদার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[related_post themes="flat" id="2526"]

সম্পাদক ও প্রকাশক :মোঃবোরহান,হাওলাদার(জসিম)

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক,সনজিত সাহা

মোবাইল০১৯১২৩৩৮৮৩৪,০১৯১১০৬৯৫১৩

ইমেইল:Somoyerkanth@gmail

বার্তা ও বাণিজ্যিক.কার্যালয় : ২৬২/ক.বাগীচাবাড়ী(৩য়া)ফকিরাপুল.মতিঝিলওসম্পাদক/কর্তৃকতুহিনপ্রিন্টিংপ্রেস ফকিরাপুলমতিঝিল,ঢাকা১০০০।