মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন

পৈশাচিক নির্যাতনে ॥ গৃহবধূ ছাবেদা বেগম, সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে।

পৈশাচিক নির্যাতনে ॥ গৃহবধূ ছাবেদা বেগম, সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:কথা কাটা কাটির এক পর্যায়ে ছাবেদা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে পৈশাচিক নির্যাতন করেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। বেপরোয়া মারপিট ও নির্যাতনের এক পর্যায়ে কাটের রোইল দিয়ে পায়ে, বুকে, পিটে ও শরীরের ভিবিন্ন স্থানে পৈশাচিক অত্যাচার করা হয়। এ নির্যাতনের পর সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন ছাবেদা বেগম।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের মৃত আঃ জলিল এর ছেলে আব্দুল ছবুর (৩৫) এর সঙ্গে প্রায় ১২ বছর আগে একই ইউনিয়নের সাপের কোনা গ্রামের মৃত আলা বক্স মিয়া’র মেয়ে ছাবিদা বেগম (২৫) এর  বিয়ে হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে আহত ছাবেদা বেগম জানান, বিয়ের পর থেকে একাধিকবার আমাকে ভিবিন্ন সময়ে পারপিট করেছে, আমার স্বামীর আপন বড় ভাই আঃ আওয়াল,বাতিজা নাহির উদ্দিন, ভাবি কাছামালা বিবি ও চাচাত ভাই ছামির উদ্দিন। আমি আমার ছেলে সন্তান ও আমার স্বামীর মুখের দিকে চাইয়া, এসব অত্যাচার সহ্য করে র্দীঘ ১২ বছর ধরে সংসার করছি।গত বুধবার সামান্য কথা কাটির জের ধরে আমাকে তারা এভাবে নির্যাতন করে।আমি আইনের মাধ্যমে ‍এই নির্যাতনের সঠিক বিচার ‍চাই।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




Design & Developed BY ThemesBazar.Com