বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
কালিগঞ্জে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুলন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় টুর্ণামেন্ট ২০১৮ অনুষ্ঠিত । কুমিল্লায় বিলুপ্তির পথে ৫৫ প্রজাতির দেশীয় মাছ পূর্ববর্তী যৌবনে ফিরছে ‘তিতাস’ পরবর্তী বেহাল কুমিল্লার ১২’শ কিলোমিটার সড়ক কুমিল্লায় কুমিল্লা জেলা পুলিশ পর্ব-৭ সদর দঃ মডেল থানার বর্তমান কার্যক্রম কালিহাতীতে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত অমান্য করে ইলিশ ধরার দায়ে ৭৭ জেলেকে কারাদন্ড অবসান ঘটিয়ে জরাজীর্ণ সাতক্ষীরা নিউ মার্কেটটি ভাঙা শুরু তারাগঞ্জে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উদযাপিত বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে ঝিনাইদহে র‌্যালী ও মানববন্ধন  পৌরসভায়  সরকারের সাফল্য ও উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।
বেনাপোল বন্দরের টয়লেটে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ১০টি হাতবোমা উদ্ধার

বেনাপোল বন্দরের টয়লেটে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ১০টি হাতবোমা উদ্ধার

বেনাপোল সংবাদদাতা:বেনাপোল স্থলবন্দরের একটি পণ্যগারের টয়লেট থেকে ১০টি হাতবোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৫ মে) বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে বন্দরের ১১ নম্বর পণ্যগারের টয়লেট থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশ এসব বোমা উদ্ধার করে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।
পুলিশ জানায়, বন্দরের পরিচালক তাদের ফোন করে জানান, বন্দরের ১১ নম্বর পণ্যগারের টয়লেটের মধ্যে কে বা কারা অনেকগুলো হাতবোমা রেখেছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১০টি তাজা হাতবোমা উদ্ধার করে। ৩টি হাত ব্যাগে বোমাগুলো টয়লেটে রেখে অনেক দিন ধরে তালা মেরে রাখা হয়েছিল। বন্দরে টেন্ডার সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উত্তেজনায় বোমাগুলো দুর্বত্তরা সেখানে রাখাতে পারে বলে ধারণা পুলিশের।
বাংলাদেশ স্থল বন্দর এমপ্লোয়িজ ইউনিয়নের সহ সভাপতি মনির মজুমদার জানায়, বোমা উদ্ধারের ঘটনায় বন্দরে কর্মরত কর্মচারী ও সাধারণ শ্রমিকরা আতঙ্কে রয়েছেন। এদিকে বন্দরের অভ্যন্তরে তিনটি নিরাপত্তা বাহিনীর কয়েকশ’ সদস্যদের সার্বক্ষণিক কড়া নজরদারির মধ্যে কিভাবে বন্দরের ব্যবহৃত একটি টয়লেটে অনেক দিন ধরে তালা মেরে বোমা রাখা হয় তা রহস্যজনক। ভালোভাবে তদন্ত করলে ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুর্বৃত্তরা ধরা পড়বে। বিষয়টি যেমন মানুষের জন্য হুমকি, তেমনি বন্দর পণ্যগারে থাকা আমদানিকারকদের হাজার হাজার কোটি টাকার পণ্যের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন আসছে।
বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) এহসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কারা সেখানে বোমা রাখতে পারে তা পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, খুব দ্রুত দুর্বৃত্তরা ধরা পড়বে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




https://www.facebook.com/
Design & Developed BY ThemesBazar.Com