বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
কালিগঞ্জে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুলন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় টুর্ণামেন্ট ২০১৮ অনুষ্ঠিত । কুমিল্লায় বিলুপ্তির পথে ৫৫ প্রজাতির দেশীয় মাছ পূর্ববর্তী যৌবনে ফিরছে ‘তিতাস’ পরবর্তী বেহাল কুমিল্লার ১২’শ কিলোমিটার সড়ক কুমিল্লায় কুমিল্লা জেলা পুলিশ পর্ব-৭ সদর দঃ মডেল থানার বর্তমান কার্যক্রম কালিহাতীতে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত অমান্য করে ইলিশ ধরার দায়ে ৭৭ জেলেকে কারাদন্ড অবসান ঘটিয়ে জরাজীর্ণ সাতক্ষীরা নিউ মার্কেটটি ভাঙা শুরু তারাগঞ্জে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উদযাপিত বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে ঝিনাইদহে র‌্যালী ও মানববন্ধন  পৌরসভায়  সরকারের সাফল্য ও উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।
পাবনার ঈশ্বরদীতে এক কোটি টাকা ব্যায়ে কাজে অনিয়ম,কাজের পরদিনই উঠে গেল পিচ-খোয়া

পাবনার ঈশ্বরদীতে এক কোটি টাকা ব্যায়ে কাজে অনিয়ম,কাজের পরদিনই উঠে গেল পিচ-খোয়া

মামুনুর রহমান,পাবনা: পাবনার ঈশ্বরদীতে প্রায় এক কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত ৪ কিলোমিটার রাস্তা উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তরে বুঝিয়ে দেওয়ার পরদিনই বিভিন্ন স্থানে ভেঙে গেছে। কোথাও কোথাও কুচিপাথরসহ রাস্তার উপরের অংশ উঠে গেছে।ঠিকাদারের পক্ষ থেকে সোমবার(০৭ মে) রাস্তা এলজিইডি অফিসে বুঝিয়ে দেওয়ার পরদিন মঙ্গলবার (০৮ মে) সকালেই রাস্তার এই হাল দেখে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। সকালে উপজেলার সাঁড়া ইউনিয়নের চানমারি মোড়ে বিপুল সংখ্যক এলাকাবাসী জড়ো হয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এসময় ওই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দেন তারা। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল মামুন, উপজেলা প্রকৌশলী মো. এনামুল কবীর,সাঁড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক রানা সরদারসহ প্রকৌশল অধিদপ্তরের অন্যান্য সহকারী প্রকৌশলীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুনরায় রাস্তা নির্মাণের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতী শান্ত হয়।স্থানীয়দের অভিযোগ, ঠিকাদারের লোকজন তড়িঘড়ি করে এই রাস্তার কাজ করেছেন, কাজের সময় বিটুমিনের বদলে পোড়া মবিলের সঙ্গে পাথর মিশিয়ে রাস্তায় দেওয়া হয়েছে। কাজের সময় এসব ঘটনার প্রতিবাদ জানালে ঠিকাদারের লোকজন তাদের উল্টো ক্ষমতার দাপট দেখিয়েছেন। এ বিষয়ে ঠিকাদার জিন্নাত আলী জিন্না বলেন, এই রাস্তার ধারণ ক্ষমতা ১৫ থেকে ১৮ টন,কিন্তু রাস্তা দিয়ে ৪০ টন ওজনের ড্রাম ট্রাকে বালু বহনের কারণে বিভিন্ন স্থানে ভেঙে গেছে।ঈশ্বরদী উপজেলা প্রকৌশলী মো. এনামুল কবীর বলেন, রাস্তার ভাঙা অংশ আমরা খুব দ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা করবো। উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আল মামুন বলেন,আমি সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা দ্রুত ভাঙা অংশ মেরামতের নির্দেশ দিয়েছি। উপজেলা প্রকৌশল অফিস সূত্র জানায়, ৮২ লাখ টাকা ব্যায়ে উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) তত্ত্বাবধানে ঈশ্বরদীর আসনা জিপিএস থেকে চানমারি পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার রাস্তা কার্পেটিং কাজ সোমবার সম্পন্ন হয়। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ঠিকাদার জিন্নাত আলী জিন্না রাস্তাটি উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তরে এ দিনই বুঝিয়ে দেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




https://www.facebook.com/
Design & Developed BY ThemesBazar.Com