রবিবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৮, ০৬:১৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ঢাকা ময়মনসিংহ রোড ও গাজীপুর টাঙ্গাইল রোডে আবাসিক হোটেলে চলছে প্রশাসনকে ম্যানেজ করে রমরমা দেহ ব্যবসা। আশুলিয়া থানা যুবলীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল তসবির মহরের অশ্লীল পোস্টারে সয়লাব যশোর জামালপুরে ভিজিএফ’র চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ সাতক্ষীরার বাবুলিয়ার ত্রাস সাদেক গাজী আটক ঈদ-উল আযহা উদযাপনের জন্য প্রস্তুত যশোর দাকোপের চালনায় শ্রীশ্রী অনুকুলচন্দের ১৩১ তম আর্বিভাব মাসভাদ্রমাস ব্যাপী অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন বেনাপোলে৩০লাখ টাকা মূল্যের ভারতীয় শাড়ীর চালান আটক করেছে বিজিবি। শ্রীপুরে শির্ষ্য মাদক ইয়াবা ব্যাবসায়ি পিচ্চি রাজিব । সন্তানদের স্বাভাবিক জীবন চান কাজল
পার্বতীপুরে কিডনি রোগে আক্রান্ত প্রদীপ বাঁচতে চায়

পার্বতীপুরে কিডনি রোগে আক্রান্ত প্রদীপ বাঁচতে চায়

আব্দুল্লাহ আল মামুন, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুরের পার্বতীপুরে প্রদীপ চন্দ্র রায়(২২) নামে এক ছাত্র কিডনি জনতি জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। সে উপজেলার ৫নং চন্ডিপুর ইউনিয়নের ছোট হরিপুর (হিন্দুপাড়া) এলাকার দিনমজুর বকুল চন্দ্র রায়ের পুত্র। গত তিন মাস পূর্বে প্রদীপ হটাৎ অজানা রোগে আক্রান্ত হলে দিন দিন ক্রমশই তার শারীরিক গঠন শুকিয়ে আসতে থাকে। তার পরিবার এর কারণ জানার জন্য তাকে নিয়ে প্রথমে দিনাজপুরে চিকিৎকের দারস্ত হলে বিভিন্ন ধরনের নিরীক্ষার পর ধরা পরে প্রদীপ কিডনি জনতি জটিল রোগে আক্রান্ত প্রদীপ। পরে চিকিৎসকের দেয়া ব্যবস্থাপত্র এবং সকল পরীক্ষা নিরীক্ষার রিপোর্ট রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কিডনি রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোবাশ্বের আলমকে দেখালে প্রদীপের দুটি কিডনি ই অচল হয়ে গেছে বলে জানান তিনি। এমতাবস্তায় তাকে সুস্থ্য করতে হলে কিডনি ডায়ালাইসিস অথবা স্থানান্তর করতে হবে। চিকিৎসকের মতে কেউ যদি কিডনি দান করে তবুও তার চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন খরচ বাবদ প্রায় ১৫লক্ষ টাকা প্রয়োজন। তবেই তাকে সুস্থ্য করা সম্ভব। যা অস্বচ্ছল এই দিনমজুরের পক্ষে এ বিপুল অর্থের ব্যায়ভার বহণ করা সম্ভব নয়। বর্তমানে সপ্তাহে দুইবার ডায়ালাইসিস বাবদ তার খরচ দশ হাজার টাকা। ইতোমধ্যে তার পেছনে চিকিৎসা বাবদ প্রায় লক্ষাধিক টাকা খরচ করেছে পরিবারটি। এরই মধ্যে চিকিৎসার খরচ যোগাতে সহায়সম্বলহীন হয়ে পড়েছে পরিবারটি। ব্যয় বহুল চিকিৎসার খরচ যোগান দেওয়া হতদরিদ্র প্রদীপের বাবা বকুল চন্দ্র রায়ের পক্ষে সম্ভব না হওয়ায় চিকিৎসা না করিয়ে কিডনি জনতি জটিল রোগ নিয়েই বাড়ি ফিরতে হয়েছে তাকে। টাকার অভাবে এখন বাড়িতে সে শয্যাশয়ী। এদিকে চিকিৎসকরা তার দ্রুত অপরেশন করার মাধ্যমে কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট করার জন্য পরামর্শ দেন। তার ছোট ভাই কাজল রায় (১৮) তার বাম চোখে আঘাতগ্রস্থ হয়ে হাসপাতালের চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাকে দ্রুত অপারেশন করা না হলে অন্ধ হয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। মেধাবী ছাত্র প্রদীপ ও তার ভাইকে বাঁচাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সমাজের বিত্তবানসহ দেশবাসীর কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তার পরিবার। তাদের আশা সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে আবার আগের মতো স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবে তাদের সন্তান। তাকে সাহায্যের জন্য যোগাযোগ করুন প্রদীপের মামার সাথে ০১৭২৪১৩৭৫০৬এই নাম্বারে। সঞ্চয়ী হিসেব নং A/C: 7017018717702 (DBBL)|

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




https://www.facebook.com/
Design & Developed BY ThemesBazar.Com